• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
|  ৩১ জুলাই ২০১৮, ২১:৫১ | আপডেট : ৩১ জুলাই ২০১৮, ২২:০৮
ময়মনসিংহ শহরের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও মহানগর যুবলীগের সদস্য সাজ্জাদ আলম শেখ আজাদ ওরফে আজাদ শেখকে (৪৫) গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। 

মঙ্গলবার বিকেলে শহরের আকুয়া হাবুন বেপারির মোড় সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এর আগে সকাল সাড়ে এগারোটা থেকে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা শুরু হয়।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ শহরের আকুয়া এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মহানগর যুবলীগের সদস্য সাজ্জাদ আলম শেখ আজাদ ও শেখ ফরিদের মধ্যে প্রায় দু’মাস ধরে সংঘর্ষ, গুলি বিনিময়, ককটেল বিস্ফোরণ ও ধাওয়া -পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে আকুয়া হাবুন বেপারী মোড় সংলগ্ন আজাদ শেখের বাড়ির এলাকায় আজাদ বাহিনীর সঙ্গে শেখ ফরিদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। 

দু’পক্ষের ৩০ থেকে ৪০ জন সমর্থক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান নিলে পুলিশের সামনেই দু’পক্ষ বেপরোয়াভাবে গোলাগুলি করতে থাকে। বিকেল তিনটার দিকে প্রতিপক্ষরা আজাদ শেখকে বাসার কাছে গুলি ও কুপিয়ে আহত করে। পরিবারের সদস্যরা গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পরে আজাদ শেখের সমর্থকরা শেখ ফরিদের এক আত্মীয়ের  বেকারিতে অগ্নিসংযোগ করে এবং হাসপাতালের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে দুটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও কয়েকটি ইজিবাইক ভাঙচুর করে।

খবর পেয়ে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করা হয়েছে।

এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়