• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

ধ্বংস করা হলো পাথর তোলার ১৪ ড্রেজার মেশিন

পঞ্চগড় প্রতিনিধি
|  ১৬ জুলাই ২০১৮, ১৭:৫২ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৮, ১৮:১৬
পঞ্চগড় সদরের মীরগড় এলাকার করতোয়া নদীতে অবৈধভাবে নিষিদ্ধ ড্রেজার মেশিন (খনন যন্ত্র) দিয়ে পাথর উত্তোলন করার সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১৪টি ড্রেজার মেশিন আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে পঞ্চগড় সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নবিরুল ইসলাম বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও পুলিশের সহযোগিতায় এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

পুলিশ জানায়, পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নে করতোয়া নদীর মীরগড় খেয়াঘাট এলাকায় অবৈধভাবে নিষিদ্ধ ড্রেজার মেশিন ব্যবহার করে একটি মহল পাথর উত্তোলন করছিল। সেখানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়েই পালিয়ে যায় পাথর উত্তোলনকারীরা। পরে করতোয়া নদীতে পাওয়া প্রায় ১০ লাখ টাকা মূল্যের ১৪টি ড্রেজার মেশিন আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এসময় ওই ড্রেজার মেশিনের পাইপসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশগুলো আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়। তবে পালিয়ে যাওয়ায় পাথর উত্তোলনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কাউকে আটক করা যায়নি।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নবিরুল ইসলাম আরটিভি অনলাইনকে বলেন, করতোয়া নদীতে নিষিদ্ধ ড্রেজার মেশিন ব্যবহার করে পাথর উত্তোলনের সময় ১৪টি মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে। নিষিদ্ধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

জেবি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়