‘প্রথমে ভাব জমায়, পরে সবকিছু লুট করে’

প্রকাশ | ১৪ জুন ২০১৮, ১৪:০৭

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানার স্টেশন রোড এলাকা থেকে অজ্ঞানপার্টির চার সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার সকালে তিনটি ছোরা ও অজ্ঞান করার ওষুধসহ তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, রফিক মিয়া বাবুল (৫০),মনির (৩৫), মেহেদি হাসান(২৮)ও সাহাবুদ্দিন (৩০)। 

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন আরটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে যে, প্রথমে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে নগরীর ব্যস্ততম এলাকার বাসে কিংবা ট্রেনে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কৌশলে ভাব জমায়। পরে ডাবের পানি, চা কিংবা পানের ভেতরে ক্লোনাজেপাম গ্রুপের পেইস-২ ও ডেসোপ্যান-২ ওষুধ মিশিয়ে সাধারণ লোকজনদেরকে অজ্ঞান করে ফেলে। পরে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া মানুষদের কাছ থেকে মোবাইল, টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। 

তিনি আরও বলেন, অজ্ঞান করার পরিকল্পনা ব্যর্থ হলে তখন ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে লোকজন থেকে মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় চক্রটি। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নগরীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

এসএস