• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

তিন দিন পরেও আলো আঁধারিতে নেত্রকোনা

নেত্রকোনা প্রতিনিধি
|  ১৪ মে ২০১৮, ১৭:১০
ঘূর্ণিঝড়ে টাওয়ার ভেঙে পড়ার কারণে গোটা নেত্রকোনা জেলায় তিন দিন বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। তিন দিন পর সোমবার থেকে কিছু কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু করা হয়েছে। এখনও অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ফলে মানুষের দুর্ভোগ পৌঁছেছে চরম পর্যায়ে।

জানা গেছে, রোববার রাতে শহরের সাতপাই এলাকায় অবস্থিত নেত্রকোনা সরকারি কলেজে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়েছে। পরে একে একে শহরের জয়নগর, নাগড়া, মুক্তারপাড়া ও পাটপট্টি এলাকায় বিদ্যুতের লাইন দেয়া হয়। অন্যদিকে সাতপাই আবাসিক এলাকায় এখনও বিদ্যুতের লাইন দেয়া হয়নি। এই এলাকায় বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে যাওয়ার কারণে স্থানীয়রা শিগগিরই বিদ্যুৎ আসা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন।

এদিকে আটপাড়া, মদন ও পূর্বধলা উপজেলার কিছু অংশে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হলেও কলমাকান্দা, দুর্গাপুর, মোহনগঞ্জ, খালিয়াজুড়ি, বারহাট্টা ও কেন্দুয়া উপজেলায় এখনও বিদ্যুতের লাইন দিতে পারেনি পল্লীবিদ্যুৎ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রোববার রাত ১২টার দিকে নেত্রকোনা শহরের কিছু কিছু এলাকায় লাইন দেয়া হলেও সারা রাত বিদ্যুৎ ছিল না। দিনেও বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করছে।

সাতপাই এলাকার বাসিন্দা নেত্রকোনা সরকারি কলেজের অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা আরটিভি অনলাইনকে জানান, আমাদের এলাকায় এখনও বিদ্যুৎ আসেনি। খুঁটি ভেঙে যাওয়ার কারণে হয়তো আরও কয়েক দিন বিদ্যুৎ আসবে না।

শহরের হাসপাতাল এলাকার বাসিন্দা সাংবাদিক পল্লব চক্রবর্তী বলেন, রোববার রাত ১২টার দিকে আমাদের এলাকায় বিদ্যুৎ এলেও পরে চলে গেছে। সারা রাত বিদ্যুৎ ছিল না। দিনের বেলাতেও আসা যাওয়া করছে বিদ্যুৎ।

গাড়া রোডের বাসিন্দা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিলা খান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, নেত্রকোনা সরকারি কলেজ  ও শহরের ভিআইপি এলাকাগুলোতে বিদ্যুৎ এলেও আমাদের এখানে লাইন দেয়া হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী হেলাল মো. আফজাল আরটিভি অনলাইনকে বলেন, শহরের অধিকাংশ এলাকাতেই বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়েছে। আমরা রাত-দিন কাজ করছি। আশা করছি আর ৮-১০ ঘণ্টার মধ্যেই পুরো শহরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারব।

পল্লী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার মুজিবুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, আমি এখন মিটিংয়ে আছি। বিদ্যুতের বিষয়টি নিয়েই আলোচনা হচ্ছে।

গেল শুক্রবার সকাল সাড়ে ছয়টা থেকে প্রায় ১৫ মিনিটের বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে নেত্রকোনা পৌর শহরসহ গোটা জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এতে পাকা ধান ও ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

জেবি/সি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়