• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

সরকারের দুই প্রতিষ্ঠানের দ্বন্দ্বে ভোগান্তিতে মোংলা পোর্ট পৌরবাসী

সোহাগ মোল্লা
|  ১১ মে ২০১৮, ২৩:০৫ | আপডেট : ১১ মে ২০১৮, ২৩:৩২
খাবার পানির ভয়াবহ সংকটে পড়েছে বাগেরহাটের মোংলা পোর্ট পৌরসভার বাসিন্দারা। প্রথম শ্রেণির পৌরসভার নাগরিক হয়েও পৌর কর্তৃপক্ষ আর জনস্বাস্থ্য বিভাগের দ্বন্দ্বের কারণেই লবণ পানি থেকে মুক্তি মিলছে না তাদের। তাই খাবার পানির অভাবে ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে পৌরবাসীর।

ভুক্তভোগীরা জানান, শহরের কুমারখালীর ট্রিটমেন্ট প্লান্ট থেকে ঘণ্টায় সরবরাহ হয় ২ লাখ লিটার পানি। আছে ১০ লাখ লিটার ধারণ ক্ষমতার ২টি ওভারহেড ট্যাংক। তারপরও পানীয় জলের সংকটে পড়েছে অন্তত ৬০ হাজার মানুষ।

গত ২০১৬ সালে লবণ অধ্যুষিত উপকূলীয় এলাকার এই নাগরিকদের বিশুদ্ধ পানির চাহিদা মেটাতে ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে দ্বিতীয় ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের কাজ শুরু করা হয়।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : বাবা-মায়ের কবর জিয়ারতে কিশোরগঞ্জে রাষ্ট্রপতি
--------------------------------------------------------

মোংলা পোর্ট পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. আলাউদ্দিন জানান, প্রকল্পটি নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম হওয়ায় এটি বুঝে নিচ্ছে না পৌর কর্তৃপক্ষ। তাই চাহিদা অনুযায়ী নাগরিকদের পানি সরবরাহ করা যাচ্ছে না।

এদিকে প্রকল্পটির নির্মাণ কাজে তদারকির দায়িত্বে থাকা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মোংলা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্র তালুকদার বলেন, সব নিয়ম মেনেই প্লান্টটির নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়েছে। আগামী একমাসের মধ্যেই প্রকল্পটি বুঝিয়ে দেয়া হবে পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে।

আরও পড়ুন : 

কে/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়