• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

‘বেনাপোল বন্দরে সকল ধরণের চুরি বন্ধ করতে হবে’

বেনাপোল প্রতিনিধি
|  ১৮ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:৩৯ | আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:৪৩
যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন।  বলেন, দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল। যেপথ দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের যাতায়াত ব্যবস্থা সহজ হয়। আমদানি রপ্তানি কারকদের পণ্য পরিবহনে খরচ কম হয়। সে কারণে এই বন্দর দিয়েই সকল ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাতে চায়। তাই ব্যবসায়ীদের এই বন্দরের দিকে আরও আকৃষ্ট করতে হলে এখানকার সকল ধরণের চুরি বন্ধ করতে হবে। 

বুধবার বেনাপোল স্থলবন্দর হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়ন ও বন্দর পরিচালকসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপকালে এমপি এসব কথা বলেন।

শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, এ বন্দর ব্যবহারকারীদের সঙ্গে এখানকার সকল শ্রমিকদের ব্যবহার আরও মধুর করতে হবে। ভারত-বাংলাদেশ ট্রাকের ড্রাইভার তথা সিএন্ডএফ বা ট্রান্সপোর্ট মালিক বা কর্মচারীদের কাছ থেকে জোর পূর্বক বকশিষের টাকা নেয়া যাবে না। বিনিময়ে শ্রমিকদের সকল স্বার্থসহ বন্দরের প্রয়োজনে যা কিছু করার দরকার তা আমি করব। 

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : শরীয়তপুরে ওয়ারেন্ট জালিয়াতির নায়ক গ্রেপ্তার
--------------------------------------------------------

তিনি বলেন, বেনাপোল বন্দরের উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই। কারণ, এ বন্দরের উপর হাজার হাজার মানুষের জীবিকা নির্ভর করে। বেনাপোল বন্দর থেকে আহরণকৃত বিপুল পরিমাণে রাজস্ব দেশের চাকা সচল রাখতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। তাই এই বন্দরকে উন্নয়ন করতে যা কিছু দরকার তা করা হবে।
 
এদিন বেনাপোল বন্দরে শেড, ইয়ার্ড, পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা, শ্রমিকদের ক্যান্টিন ব্যবস্থা, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, আমদানি-রপ্তানি কারকদের পণ্য লোড-আনলোডের স্থান, বিড়ম্বনার কারণ, অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থাসহ বিবিধ বিষয় খতিয়ে দেখেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল স্থলবন্দরের পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম, সিবিএ’র সভাপতি জাবেদী বিল্লা, সিনিয়র সহ-সভাপতি মনির হোসেন মজুমদারসহ বন্দরের সকল প্রশাসনিক কর্মকর্তা, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য ও বন্দরের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রোপাইটর অহিদুজ্জামান অহিদ, শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান।

আরও পড়ুন : 

এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়