• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

রাজশাহী ও চুয়াডাঙ্গায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ০৬ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:৪৮ | আপডেট : ০৬ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:৫৪
রাজশাহী ও চুয়াডাঙ্গায় আজ শনিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ফলে এই দুই উপজেলায় প্রচণ্ড শীতের কারণে জনজীবন থমকে গেছে। দরিদ্র মানুষেরা তীব্র শীতের কারণে দুঃসহ জীবন যাপন করছে।

চুয়াডাঙ্গা ও রাজশাহী থেকে আরটিভি প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

চুয়াডাঙ্গায় চলছে তীব্র শৈতপ্রবাহ। এতে জনজীবনে নেমে এসেছে স্থবিরতা। শনিবার চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। যা এ বছরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।ঘন কুয়াশার কারণে হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচল করছে।

তীব্র শীতের কারণে লোকাল বাসে যাত্রী না হওয়ায় চুয়াডাঙ্গার আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালসহ শহরের চারটি বাসস্ট্যান্ড থেকে সকালের দিকের বেশ কয়েকটি ট্রিপ বন্ধ রাখা  হয়েছে। ঘন কুয়াশার কারণে সকাল ও রাতের বেলা গন্তব্যে পৌঁছতে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগছে বলে জানিয়েছেন বাস চালকরা।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের চুয়াডাঙ্গা পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামাদুল হক জানান, চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে এখন তীব্র শৈতপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তাপমাত্রা নেমে আসার পাশাপাশি ঘনকুয়াশা ও তীব্র শৈতপ্রবাহের কারণে শীত বেশি অনুভূত হচ্ছে।

এদিকে রাজশাহীতেও শনিবার  সকাল ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

আবহাওয়া অফিসের তাপযন্ত্রের পারদ জানান দিচ্ছে, শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে রাজশাহী অঞ্চলে। গেলো বৃহস্পতিবার থেকে চলমান মৃদু শৈত্যপ্রবাহটি  আরো ঘনীভূত হয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিয়েছে। ফলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় দুর্ভোগে পড়েছেন এই অঞ্চলের সাধারণ মানুষ।  

ভোরের ঘন কুয়াশার বৃত্ত ছেদ করে সকাল ৯টার পর দেখা মেলে সূর্যের। তারপর সোনালি রোদে ঝলমলে হয়ে উঠেছে রাজশাহী। কিন্তু উষ্ণ হয়ে ওঠেনি। হিমালয় ছুঁয়ে আসা উত্তরের কনকনে ঠাণ্ডা বাতাসের কাছে যেন হার মেনেছে সূর্যের তেজ।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক লতিফা হেলেন বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহীতে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। ওইদিন রাজশাহীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরপর শুক্রবার সামান্য বেড়ে তাপমাত্রা দাঁড়ায় ৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কিন্তু শনিবার সকাল ৬টায় রাজশাহীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা এখন পর্যন্ত চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এর আগে গত বছরের ১৪ জানুয়ারি রাজশাহীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল বলে জানান আবহাওয়া কর্মকর্তা লতিফা হেলেন।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলম বলেন, রাজশাহীর ওপর দিয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বইছে। কয়েকদিনের মধ্যে এই অবস্থার উন্নতির সম্ভাবনা নেই। তবে রাতে কুয়াশার ঘনত্ব যদি বাড়তে শুরু করে তাহলে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।

কিন্তু দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচেই অবস্থান করবে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সপ্তাহজুড়ে দুই থেকে তিনটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে রাজশাহী ও আশপাশের জেলার ওপর দিয়ে। এসময় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত নামতে পারে বলে জানান রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

জেবি/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়