close
ঢাকা, রোববার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৩ পৌষ ১৪২৪

নিখোঁজের দেড় মাস পর যুবতীর মরদেহ উদ্ধার, আটক ৪

নওগাঁ সংবাদদাতা
|  ০২ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩:৩৮ | আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩:৪১
নিখোঁজের দেড় মাস পর নওগাঁ সদর উপজেলা থেকে এক যুবতীর গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার সদর উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রাম থেকে মাটি খুঁড়ে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম আলেমা(১৯)। তিনি ওই গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়ি ও চাচা শ্বশুরকে আটক করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে নিয়ামতপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে আরটিভি অনলাইনকে জানান, আড়াই মাস আগে নিয়ামতপুর গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে আলেমাকে নিয়ে পালিয়ে যায় একই গ্রামের রাশেদ মেনন রুমির ছেলে শাহরিয়ার শাওন (১৯)। পরে তারা বিয়ে করে ঢাকা চলে যায়। সেখানে ১২ দিন থাকার পর শাওন বৌ নিয়ে বাড়ি ফিরেন।

এর কয়েক দিন পর আলেমা নিখোঁজ হন। তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে তার পরিবার থানায় একটি জিডি করে। শনিবার বিকেল চারটার দিকে শাওনের বাড়ির উত্তর দিকে থাকা কবরস্থানের পাশের একটি পুকুরের পার থেকে মাটি খুঁড়ে বস্তাবন্দি অবস্থায় আলেমার গলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আলেমার স্বামী শাহরিয়ার শাওন, শ্বশুর রাশেদ মেনন রুমি, শাশুড়ি সুলতানা রাজিয়া ও চাচা শ্বশুর  নাহিদ রেজা রুবেলকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ওসি রফিকুল ইসলাম।

জেবি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়