• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ট্রলার ডুবে পদ্মায় ভাসছে গরু-মহিষ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৮ আগস্ট ২০১৭, ২২:৫৬ | আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০১৭, ০৯:১৩
পদ্মায় ট্রলার ডুবে অন্তত ৪০টি গরু মারা গেছে। ঢাকায় কোরবানির ঈদের হাটে আনার জন্য ৫৪টি গরু ও ১১টি মহিষ ট্রলারে করে নদী পার করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোমবার বিকেলে তীব্র স্রোতের কবলে পড়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের জৌকুরা ফেরিঘাট এলাকার পদ্মা নদীতে এই ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে।

ট্রলারে থাকা গরু ব্যবসায়ী ও রাখালেরা সাঁতরে তীরে এলেও অধিকাংশ গরু-মহিষের প্রাণহানি ঘটেছে। ব্যবসায়ীরা জানান, ১৪টি গরু জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। কয়েকটি গরুর মৃতদেহ পাওয়া গেলেও অনেক গরু মহিষ নিখোঁজ রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা নুরমহল আশরাফী বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। স্থানীয় লোকজন খুব আন্তরিকতার সঙ্গে উদ্ধারকাজে সহায়তা করছে। তবে ঠিক কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা এখনই বলা সম্ভব হচ্ছে না। স্থানীয় চেয়ারম্যানকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা ও ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তালিকা পাওয়ার পর যাচাই-বাছাই করে প্রশাসন থেকে সাধ্যমতো সহায়তা করা হবে।

কালুখালীর গরু ব্যবসায়ী কুদ্দুস ব্যাপারী বলেন,  কয়েকজন গরু ব্যবসায়ী একসঙ্গে আরিচা যাচ্ছিলেন। আরিচা থেকে ট্রাকে করে ঢাকায় গরু নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তাদের সঙ্গে গরু-মহিষ দেখভাল করার জন্য ২২ জন রাখাল ছিলেন। কিন্তু ট্রলারডুবির ঘটনায় এখন তারা সর্বস্বান্ত।

পুলিশ জানায়, কালুখালী উপজেলার রূপসা খেয়াঘাট এলাকা থেকে ২৬ জন ব্যবসায়ী বিক্রির জন্য গরু-মহিষ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। ট্রলারে ৫৪টি গরু ও ১১টি মহিষ ছিল। জৌকুরা ফেরিঘাট এলাকায় পৌঁছালে তীব্র স্রোতের কবলে পড়ে ট্রলারটি ডুবে যায়। পদ্মার দুই পাড়ে ১৬টি মৃত গরু পাওয়া গেছে। গরু ব্যবসায়ী ও রাখালেরা সাঁতরে তীরে ফিরে এসেছেন।

এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়