close
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ | ০২ কার্তিক ১৪২৪

চিকিৎসা না পেয়ে সিভিল সার্জনের দরজায় রোগীর অবস্থান

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট, পঞ্চগড়
|  ১৬ মে ২০১৭, ২০:৫৭ | আপডেট : ১৬ মে ২০১৭, ২১:০১
পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে সঠিক চিকিৎসা না পেয়ে এবং সকলের জন্য পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতের দাবীতে সিভিল সার্জনের বাস ভবনের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেয় পলাশ কুমার রায় (৩৫) নামে এক ব্যক্তি।

মঙ্গলবার দুপুরে পঞ্চগড় শহরে সিভিল সার্জনের বাস ভবনের সামনে তিনি শুয়ে পড়েন। এ সময় উৎসুক জনতার ভিড়ে কিছুক্ষণের জন্য পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা জাতীয় মহাসড়ক বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

নিজেকে আইনজীবী পরিচয়দানকারী পলাশ কুমার রায় পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের বর্ষালুপাড়া-বড় সিংগিয়া গ্রামের প্রণব কুমার রায়ের ছেলে।

তিনি বলেন, আমি সোরিয়াসিস নামের এক প্রকার চর্ম রোগে আক্রান্ত হয়ে গেলো চার দিন আগে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হই। এই চার দিনে হাসপাতালে কোনো ডাক্তার আমার সঠিক চিকিৎসা করেননি। দু-একবার খোঁজ খবর নিয়েছেন মাত্র। পরে আমি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী, স্বাস্থ্য সচিবসহ বিভিন্ন কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করি। খবরটি চিকিৎসকরা জানতে পারলে মঙ্গলবার সকালে আমাকে জোর করে ছাড়পত্র ধরিয়ে দিয়ে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়া হয়। তাই আমি পঞ্চগড়ের একজন বাসিন্দা হিসেবে আমাদের মৌলিক অধিকার সঠিক চিকিৎসা সেবার দাবীতে এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। তিনি বলেন, চার দিন ধরে হাসপাতালে আছি এই হাসপাতালে পর্যাপ্ত ওষুধ নেই। এখানে নিম্নমানের খাবার পরিবেশন করা হয়। 

প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা অবস্থানের পর স্থানীয়রা তাকে ফের চিকিৎসার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এদিকে সিভিল সার্জন ডা. পিতাম্বর রায় বলেছেন, পলাশ চন্দ্র রায়ের সম্ভবত মানসিক সমস্যা রয়েছে। তাছাড়া আমাদের হাসপাতালে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ নেই। আমরা আমাদের সাধ্যমতো তার চিকিৎসা দিয়েছি। তাকে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে দেখা করার পরামর্শও দেয়া হয়েছে।

এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়