• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

২৫তম দিনে নতুন বই ১৬৩

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১৯:৫০ | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২০:০৩
শনিবার ছিল অমর একুশে বইমেলার ২৫তম দিন। এদিন নতুন বই এসেছে ১৬৩টি। ৪১টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। মেলায় সকাল ১১টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ছিল শেষ শিশুপ্রহর।

সকাল সাড়ে ১০টায় শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন, সঙ্গীত, সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিশু-কিশোরদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। 

বিকেল চারটায় বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় 'বাংলাদেশের শিশুসাহিত্য' শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রফিকুর রশিদ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন আমিরুল ইসলাম এবং আসলাম সানী। সভাপতিত্ব করেন জাকির তালুকদার। 

প্রাবন্ধিক বলেন, বাংলা শিশুসাহিত্যের অর্জন মোটেই কম নয়। দেশের শিশুসাহিত্য বায়ান্ন'র ভাষা-আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণ-আন্দোলন এবং সর্বোপরি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগ্রত হয়ে ভিন্নমাত্রা এবং উচ্চতা লাভ করেছে। বিষয়বৈচিত্র্যের দিক থেকে শিশুসাহিত্য যদিও হয়ে উঠেছে সর্বপ্রান্তস্পর্শী, তবে এ কথা মানতেই হবে দেশপ্রেমই যেনো সাহিত্যের এ শাখাটিতে প্রাণের স্পন্দন এনে দিয়েছে। 

সভাপতির বক্তব্যে জাকির তালুকদার বলেন, শিশুসাহিত্য হচ্ছে জাতিগঠনের ভিত্তি। সারা পৃথিবীর সব চিন্তাবিদ অনুভব করেছেন জাতিগঠনে শিশুসাহিত্যের অপরিহার্যতা। ম্যাক্সিম গোর্কি থেকে রোমা রোঁলা একই কথা বলেছেন। কিন্তু শিশুসাহিত্যে যতখানি মনোযোগ দেয়ার কথা ততখানি মনোযোগ লেখকরা দিচ্ছেন না। এ অবস্থার পরিবর্তন দরকার। 

সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ছিল মুজতবা আহমেদ মুরশেদের পরিচালনায় ‘স্বভূমি লেখক শিল্পী কেন্দ্র’ এবং হাসান আব্দুল্লাহ্’র পরিচালনায় ‘ঘাসফুল শিশুকিশোর সংগঠন’-এর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এছাড়া সংগীত পরিবেশন করেন কমলিকা চক্রবর্তী, আরিফ রহমান, শ্যামল কুমার পাল, সালমা চৌধুরী, রাজিয়া সুলতানা, ডা. রেজাউর রহমান, আবিদা রহমান সেতু এবং মনিরা ইসলাম। 

এসজে/

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়