• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

আজিমপুরেই ভাষা শহীদ সালামের কবর

অনলাইন ডেস্ক
|  ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১৬:২০ | আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১৮:২২
ভাষা আন্দোলনের ৬৫ বছর পর শনাক্ত হলো শহীদ সালামের কবর। ঢাকার আজিমপুরেই শায়িত আছেন এই মহান ভাষা সৈনিক। জানালেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আঞ্চলিক কর্মকর্তা আনসার উজ্জামান।

ভাষা শহীদ সালামের ছোট ভাই আবদুল করিম ও ভাতিজা মকবুল আহমেদ, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অঞ্চল- ৩ এর নির্বাহী কর্মকর্তা আনসার উজ্জামান, অঞ্চল-৩ এর সহকারি সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা মোহাম্মদ রোকনুজ্জামান, কবরস্থানের সিনিয়র মোহরার হাফিজুর রহমান ‌এবং দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমানের উপস্থিতিতে সোমবার কবর শনাক্ত করা হয়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন অঞ্চল-৩ এর নির্বাহী কর্মকর্তা আনসার উজ্জামান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ভাষা আন্দোলনের মহান সৈনিক শহীদ আবদুস সালামের কবর শনাক্ত করেছি। আজিমপুর কবরস্থানেই তিনি শায়িত আছেন। এখন মেয়র আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন ২১ ফেব্রুয়ারির আগেই।

তিনি জানান, ভাষা শহীদ সালামের ছোট ভাই আব্দুল করিম ও ভাতিজা মকবুল আহমেদ এসে কবর শনাক্ত করেন। তারা আজিমপুর কবরস্থানে সালামকে দাফন করার কাগজপত্র দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের হাতে জমা দেন।

আজিমপুর কবরস্থানের সিনিয়র মোহরার হাফিজুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, পরিবারের সহযোগিতায় তার কবর শনাক্ত হয়েছে। আরেক ভাষা শহীদ শফিউর রহমানের কবরের ডানপাশে দু’টি কবরের পর তার কবরটি শনাক্ত করেন ছোট ভাই আবদুল করিম।

তিনি বলেন, ভাষা শহীদ আবদুস সালামের পরিবার এরইমধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে শহীদ আব্দুস সালামের মৃত্যুর সনদ (শহীদ) গ্রহণের আবেদন করেছেন। তারা নিজেদের কাছে থাকা সব দলিল প্রমাণও জমা দিয়েছেন।

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান বাহিনীর গুলিতে ঢাকা মেডিক্যাল এলাকায় আহত হন আবদুস সালাম। সেই সময় তার সঙ্গে থাকা ভাতিজা মকবুল আহমেদ ছাত্র-জনতার সহায়তায় তাকে ঢাকা মেডিক্যালে করেন। দেড় মাস সেখানে চিকিৎসার পর ৭ এপ্রিল সকালে তিনি শাহাদাত বরণ করেন। পরদিন ৮ এপ্রিল সালামের মরদেহ আজিমপুর পুরাতন কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

এইচটি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়