• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

ডিজিটাল প্রচারণায় নারায়ণগঞ্জ

সিয়াম সারোয়ার জামিল
|  ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ১২:৪৩ | আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৩:২৮
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীরা প্রচারণা জমিয়ে তুলেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এর আগেও নির্বাচন ঘিরে এমন ব্যাপক ডিজিটাল প্রচারণা দেখা গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মধ্যে ফেসবুক এ ক্ষেত্রে এগিয়ে। প্রায় সব মেয়র প্রার্থীই নিজের নামে থাকা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ও পেজগুলোতে সমর্থন চেয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। কেউ কেউ ওয়েবসাইট, ফেসবুক, ইউটিউব, ব্লগ, টুইটার, এসএমএসও করছেন।

মেয়র প্রার্থীরা বলছেন, সিটি করপোরেশনে নতুন প্রজন্মের অধিকাংশ ভোটারই প্রযুক্তিনির্ভর। তাদের দৃষ্টি আকর্ষণে অত্যন্ত কার্যকর পদ্ধতি অনলাইন। অবশ্য তরুণ ভোটাররাও এই প্রচারকে বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে মূল্যায়ন করছেন। সরাসরি তাদের মতামতও প্রার্থীদের জানিয়ে দিচ্ছেন অনলাইনে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে প্রায় সব প্রার্থীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট সক্রিয়। আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর ফেসবুক পেজে লাইকের সংখ্যা কয়েক হাজার। সেখানে প্রচারণায় বের হওয়ার একাধিক ছবি পেজের সর্বশেষ পোস্ট। 'নয় শংকা, নয় ভয়, চাই শহর শান্তিময়' শীর্ষক স্লোগানে তার পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে তার সমর্থক গোষ্ঠী।

আইভীর প্রচারণার দায়িত্বে থাকা মাসুদ আলম বলেন, ‘ফেইসবুকে প্রচারণা মূলত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পথে আরো এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া।

ফেইসবুকে দেশে বিদেশে আইভী আপার অসংখ্য ভক্ত রয়েছেন।

তারা ফেইসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

আইভী আপা যুব ও ছাত্র সমাজের নয়নের মণি হিসেবে পরিচিত।

’ এছাড়া ভয়েস এসএমএস, ক্ষুদে বার্তাসহ নানাভাবে সরাসরি ভোটারের কাছে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি জানান।

 

 

 

বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী এ্যাড সাখাওয়াত হোসেনের নামে একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থাকলেও এটি তেমন সক্রিয় নয়। তবে বিএনপি সমর্থকদের পোস্ট করা বিভিন্ন লিংকে ট্যাগ করা আছে। সিটি নির্বাচন নিয়ে তিনি সক্রিয় শুরু থেকেই। এখন নির্বাচন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংবাদ ও ঘটনাপ্রবাহ সমর্থকদের জানিয়ে দিচ্ছেন ফেসবুকের মাধ্যমে।

পিছিয়ে নেই কল্যাণ পার্টির রাশেদ ফেরদৌসও। তার সবশেষ পোস্টে ভোটারদের উদ্দেশে- মার্কা নয় ব্যক্তি দেখে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। অনলাইন প্রচারণায় সক্রিয় আরেক প্রার্থীর নাম মাহবুবুর রহমান ইসমাইল। তিনি বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী হিসেবে কোদাল মার্কায় নির্বাচন করছেন। বানিয়েছেন বিভিন্ন ডিজিটাল পোস্টার।

নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ও পেজের বাইরে অনলাইন প্রচারণায় তিনি খুলেছেন ফেসবুক গ্রুপও। অনলাইনে তরুণদের তিনি যানজট মুক্ত 'স্বপ্নের নারায়ণগঞ্জ' উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রচার চালাচ্ছেন। পাশাপাশি পরিবর্তনের পক্ষে ঐক্য গড়ে তুলতে কোদাল মার্কায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তার পেজেই লাইক সংখ্যা প্রায় দেড় হাজার।

মিনার প্রতীক নিয়ে লড়ছেন ইসলামী ঐক্যজোটের মুফতি এজহারুল হক। তার কোন ফেসবুক একাউন্ট নেই। অনলাইনেও তার সক্রিয়তাও দৃশ্যমান নয়।  ফেসবুক ও অনলাইন প্রচারণায় কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে সিপিবি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী  শিশির চক্রবর্তী বেশ সক্রিয়।

তার সমর্থকদের পক্ষ থেকে শ্রমিকদের বঞ্চনার বিষয়গুলোতে প্রাধান্য দিয়ে বিভিন্ন পোস্ট দেওয়া হয়েছে। শ্রমিকদের পক্ষে কথা বলার মানুষ হিসেবে শিশিরকে নির্বাচিত করার আহ্বানও জানিয়েছেন তারা । মূলত বামপন্থী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরাই তার পক্ষে অনলাইনে বেশ প্রচারণা চালাচ্ছেন।

 

 

 

এসজে/ জেএইচ

 

 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়