• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

পরাজয় আঁচ করে চরম নিষ্ঠুরতা চালায় পাকিস্তান বাহিনী

নুসরাত জাহান সিনথী
|  ১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ০৯:২৭ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ১০:০২
একাত্তরের এদিনে ঢাকায় চূড়ান্ত হামলা চালিয়ে শত্রুদের আত্মসমর্পণে বাধ্য করতে এগিয়ে যায় যৌথবাহিনী। মিত্রবাহিনীর জঙ্গি বিমানের গোলা ঢাকার কুর্মিটোলা বিমানবন্দর ও বেতারকেন্দ্র অচল করে দেয়। অন্যদিকে, মুক্তিবাহিনীকে রুখতে সিকিম-ভুটান সীমান্তে সৈন্য তৎপরতা বাড়িয়ে দেয় পাকিস্তানের বন্ধু রাষ্ট্র চীন। রাতে বুদ্ধিজীবী নিধন শুরু করে বর্বর পাকিস্তান বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসররা।

দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর অবশেষে চূড়ান্ত বিজয়ের দ্বার প্রান্তে বাংলাদেশ। মুক্তিসেনাদের মরণপণ যুদ্ধে এদিন দেশের বেশ কিছু অঞ্চল মুক্ত হয়। ঘরে ঘরে তখন নিশ্চিত জয়ের আনন্দ। কিন্তু বিজয়ের শেষ মুহূর্তে অকল্পনীয়ভাবে বাংলার মাটিতে রচিত হয় বিশ্ব ইতিহাসের সবচে’ ঘৃণ্য ও বর্বরোচিত গণহত্যা।

এ রাতে আলবদর-আলশামস বাহিনীর নৃশংসতার শিকার হন প্রখ্যাত সাংবাদিক দৈনিক ইত্তেফাকের কার্যনির্বাহী সম্পাদক সিরাজুদ্দিন হোসেন। এছাড়াও এদিন পাকিস্তান বাহিনীর হাতে প্রাণ হারান খুলনার অসীম সাহসী নেভাল অফিসার রুহুল আমীন।

নিষ্ঠুরতা রুখতে অসীম সাহসে পাল্টা আক্রমণ চালাতে থাকে মুক্তি ও মিত্রবাহিনী। এ সময় পূর্বাঞ্চলের প্রবেশদ্বার আশুগঞ্জ মুক্ত করে ঢাকার দিকে এগিয়ে আসতে থাকে যৌথবাহিনী। মিত্রবাহিনীর জঙ্গি বিমানগুলো বিধ্বস্ত করে কুর্মিটোলা বিমানবন্দর ও ঢাকা বেতার কেন্দ্র। এ আক্রমণে চট্টগ্রাম ও চালনা বন্দর অচল হয়ে পড়ে।

এদিকে পরাজয় নিশ্চিত জেনে জেনারেল নিয়াজী পালানোর জন্য নানা  পরিকল্পনা করতে থাকেন। তিনি বলেন, কোথায় সেই বিদেশী সাংবাদিকেরা। আমি তাদের জানাতে চাই, কখনো আমার সেনাবাহিনীকে ছেড়ে যাবো না।

অন্যদিকে, এদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী নয়াদিল্লীতে বলেন, যুদ্ধবিরতি সংক্রান্ত জাতিসংঘ প্রস্তাব ভারত গ্রহণ বা প্রত্যাখ্যান করেনি। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিজয় শুধু তখনই সম্ভব হবে, যখন বাংলাদেশে সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। এবং ভারতে অবস্থানরত ১ কোটি শরণার্থী তাদের বাস্তুভিটায় ফিরে যেতে পারবে।

পরাজয় ঘনিয়ে আসছে দেখে এদিন নিরীহ বাঙালির উপর বর্বরতা বাড়িয়ে দেয়, নির্মম পাকিস্তান বাহিনী। তারপরও অসীম সাহসিকতায় চূড়ান্ত বিজয়ের পথে এগিয়ে যেতে থাকে বাঙলার সূর্য সন্তানেরা।

কে/এসজেড

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়