ফেসবুকে গুজব ঠেকাতে নতুন পরিকল্পনা সরকারের

প্রকাশ | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:৫০ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:০৫

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে নতুন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। এজন্য একটি  গুজব সনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্র গঠন হচ্ছে। চলতি মাসের শেষের দিকে এটি গঠন করা হবে। বললেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ তথ্য জানান।

তারানা হালিম বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর ৩ ঘণ্টার মধ্যে গণমাধ্যমকে জানানো হবে। এজন্য গুজব সনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্র কাজ করবে। প্রতিটি টিম ৭ জনের তিন শিফটে কাজ করবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম একটা গুজবের কারখানা হয়ে যায়। এই মাধ্যমের প্রতি আসক্তের কারণে একটি প্রজন্ম যাই আসুক সত্য বলে ধরে নেয়। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তথ্য মন্ত্রণালয়ের পিআইডিতে, প্রয়োজন হলে নিমকোতে বেশ কিছু তরুণ লোকবল আছে, তাদেরকে ইনক্লুড করে একটি টিম করবো, যারা ২৪ ঘণ্টা সোশ্যাল মিডিয়ায় নজরদারি করবে।

ওই টিমের কাজ হবে সোশ্যাল মিডিয়াতে যে সংবাদগুলো গুজব সেগুলো চিহ্নিত করা এবং সব সরকারি-বেসরকারি টিভি চ্যানেল, রেডিও এবং সব সংবাদ মাধ্যমে তিন ঘণ্টার মধ্যে লিখিতভাবে স্বপ্রণোদিত হয়ে পিআইডি থেকে প্রেসনোট যাবে- এই সংবাদগুলো গুজব, ভিত্তিহীন এবং অসত্য।

তারানা বলেন, বিএনপি-জামায়াতের লন্ডনভিত্তিক একটি সেল আছে এবং তিনশরও বেশি পেজ কিন্তু জামায়াতের, তারা খুব অ্যাক্টিভ এবং প্রবলভাবে স্পন্সরড তাদের পেজগুলো।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের আগেও কিন্তু এই প্রবণতাটা বেড়ে যাবে, মিথ্যা, অসত্য গুজব- এই প্রচারণা। কাজেই বাকরোধ বা কণ্ঠরোধ করা নয়, আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে কোনটি অসত্য সেটি তুলে ধরা। সে কাজ করার জন্য সেলটি গঠন করা হবে।

আরও পড়ুন  :

এসআর