• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

আজ নয়, ৪ দিন পর আকাশে উড়বে ড্রিমলাইনার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৩৮ | আপডেট : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:১২
বাণিজ্যিকভাবে যাত্রী নিয়ে পথ চলতে আরেকটু দেরি হচ্ছে ড্রিমলাইনার বিমানের। আজ আকাশবীণা নামের বিমানটির কুয়ালালামপুরে প্রথম ফ্লাইট চালু হওয়ার কথা থাকলেও তা হচ্ছে না।

বিমান বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে, আজ নয়, আগামী ৫ সেপ্টেম্বর আকাশে উড়বে বিমানের ড্রিমলাইনার আকাশবীণা।

বিমানের জেনারেল ম্যানেজার (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানিয়েছেন, আগামী ৫ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আকাশবীণার বাণিজ্যিক যাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

“শাহজালালের ভিআইপি টার্মিনাল সংলগ্ন মাঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। ওই দিন সন্ধ্যায় আকাশবীণা ঢাকা-কুয়ালালামপুরে প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট যাত্রা করবে।”

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ঢাবিতে ‘৭ মার্চ ভবন’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
-------------------------------------------------------

 

গত ১৯ আগস্ট দেশে এসে পৌঁছায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম বোয়িংয়ের তৈরি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার বিমান। এর মধ্য দিয়ে বিমান বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়ায় ১৫টি।

অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও সুবিধার সঙ্গে বিমানটিতে থাকবে ইন্টারনেট ও ফোনে কথা বলার সুযোগ।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানান, অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রীমলাইনার সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪৩ হাজার ফুট দিয়ে উড়ে যাওয়ার সময়ও ওয়াইফাই সুবিধা পাবেন যাত্রীরা। বিমানে ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে প্রত্যেক যাত্রী ১৫ মিনিটের জন্য বিনামূল্যে ১০ মেগাবাইট ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। এরপরও কোনও যাত্রী ইন্টারনেট ব্যবহার করতে হলে চার্জ দিতে হবে। ১০০ মেগাবাইটের জন্য ৮ ডলার, ৩০০ মেগাবাইটের ১৬ডলার আর ৬০০ মেগাবাইটের জন্য ৩২ ডলার হারে চার্জ দিতে হবে যাত্রীদের।

“এছাড়া মোবাইল ফোনে রোমিং সুবিধা থাকলে আকাশে উড্ডয়নের সময় কল করতে পারবেন যাত্রীরা। এজন্য ২৫টি স্যাটেলাইটের সঙ্গে করা হয়েছে চুক্তি। বিমানটি যে স্থানের ওপর দিয়েই যাবে, যাত্রীদের সামনে তখন স্ক্রিনে দেখা যাবে থ্রিডি ম্যাপ। একইসঙ্গে উঠে আসবে সেই স্থানের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।”

বিমান বাংলাদেশ জানায়, ড্রিমলাইনার দিয়ে প্রাথমিকভাবে ঢাকা-সিঙ্গাপুর ও ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

“ট্যাক্স ও চার্জ বাদে ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া ২০০ মার্কিন ডলার এবং ঢাকা-কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া ২৯০ মার্কিন ডলার।”

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান ক্রয়ের জন্য ২ দশমিক ১ বিলিয়ন ইউএস ডলারের চুক্তি করে। ইতোমধ্যে বহরে যুক্ত হয়েছে ছয়টি বিমান। বাকি চারটি বিমান হলো বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। এর প্রথমটি বিমান বহরে যুক্ত হলো। বাকি তিনটির একটি এ বছর নভেম্বরে এবং সর্বশেষ দুটি আসবে আগামী বছর সেপ্টেম্বর মাসে।

আরও পড়ুন :

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়