অন্যের পাসপোর্ট ও নাম ঠিকানা ব্যবহার করে তিনি নতুন কাউকে বিদেশ পাঠাতেন

প্রকাশ | ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩৯ | আপডেট: ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৯:০১

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় পরিবারের সুখ স্বাচ্ছন্দ্য আনয়নের লক্ষ্যে অনেকে বিদেশে পাড়ি জমাতে চান। কিছু প্রতারক চক্র মানুষের সহজ-সরল আশাকে পুঁজি করে লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে পাসপোর্ট জাল করে মানুষকে বিদেশে পাঠানোর নামে প্রতারণা করে আসছে। এ কারণে অনেকেই হচ্ছেন সর্বস্বান্ত।

সম্প্রতি এরকমই এক প্রতারক চক্রের প্রধান কাদির মিয়া ওরফে আব্দুল কাদিরকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম শাখা। তার বাবার নাম আব্দুস সামাদ। ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের কুণ্ডার চর গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি প্রায় ১৮ বছর কুয়েতে বসবাস করার পর ২০০৭ সালে দেশে ফেরেন। দীর্ঘদিন বিদেশে থাকার সুবাদে তিনি বিদেশ ফেরত বাংলাদেশিদের কাছ থেকে প্রথমে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতেন। মূলত যারা বিদেশ ফেরত বাংলাদেশি নাগরিক আর বিদেশে যাবে না, তাদের কাছ থেকে কৌশলে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতেন। তারপর সেই পাসপোর্টধারীর চেহারার সাথে যার মিল রয়েছে এমন লোকদের বিদেশে পাঠানোর প্রলোভন দেখাতেন। এভাবে সহজ-সরল লোকদের বিভ্রান্ত করে সংগৃহীত ওই পাসপোর্ট এর নাম ঠিকানা ব্যবহার করে নতুন কাউকে বিদেশ পাঠিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতেন।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাতে সিন্ডিকেট ভেঙ্গে স্বচ্ছতা আনার তাগিদ টিআইবি’র
-------------------------------------------------------

আব্দুল ওহাব নামের এক ব্যক্তি ওই প্রতারক চক্রের প্রতারণার শিকার হয়ে বিমানবন্দর থানায় ২০১৬ সালে ৬ জুলাই ওই চক্রের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। মামলা নম্বর ০৯। মামলাটির তদন্ত ভার সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম গ্রহণ করার পরে গত ১১ আগস্ট চক্রটির মূলহোতা কাদির মিয়া ওরফে আব্দুল কাদিরকে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা্র নয়াবাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করে। আব্দুল কাদের ইতিমধ্যে আদালতে স্বীকারক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন। তার বিরুদ্ধে আরও একাধিক মামলা রয়েছে।

সি