• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

জামিনের পর মুক্তি পেলেন আরও চার শিক্ষার্থী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৯:০৩ | আপডেট : ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:১৯
নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় গ্রেপ্তার হওয়া আরও চার শিক্ষার্থী জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কেরাণীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে তারা মুক্তি পান।

চার শিক্ষার্থী হলেন- ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির রিসালাত ওরফে ফেরদৌস, আমিনুল হক, ইউল্যাবের বাঈজীদ আদনান ও এশিয়ান ইউনিভার্সিটির সাবের আহমেদ।

ঢাকা কেন্দ্রীয় করাগারের ডেপুটি জেলার মোহাম্মদ জাহিদুল আলম বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে আজ সকালে সাড়ে নয়টার দিকে নয়জন শিক্ষার্থী কারাগার থেকে বেরিয়ে আসেন। তারা হলেন- বাড্ডা থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের ছাত্র জাহিদুল হক, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের টেক্সটাইল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র নূর মোহাম্মদ, ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র এ এইচ এম খালেদ রেজা, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের একই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র রেদওয়ান আহমেদ, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র রাশেদুল ইসলাম, ভাটারা থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শাখাওয়াত হোসেন, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আজিজুল করিম, ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশের (আইইউবি) বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র সিহাব শাহরিয়ার ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তরিকুল ইসলাম।

এর আগে রোববার জামিন পান- তমাল সামাদ, মাহমুদুর রহমান, সোহাদ খান, মাসরিকুল ইসলাম, ওমর সিয়াম, মাহাবুবুর রহমান, ইকবাল হোসেন, নাইমুর রহমান ও মিনহাজুল ইসলাম। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নয় শিক্ষার্থী জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। এ নিয়ে গত দুদিনে ৩২ জন শিক্ষার্থী কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

নিরাপদ সড়কের আন্দোলনে আওয়ামী লীগ অফিসে ও পুলিশের ওপর হামলা, পুলিশের কাজে বাধা ও ভাংচুরের অভিযোগে তারা বাড্ডা, ভাটারা, ধানমন্ডিসহ বিভিন্ন থানার মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

এমসি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়