কোটা আন্দোলন: লুমা ৩ দিনের রিমান্ডে, রাতুলের জামিন নামঞ্জুর

প্রকাশ | ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৯:০৭ | আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৩১

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেত্রী ও ইডেন কলেজের ছাত্রী লুৎফুর নাহার লুমাকে তিনদিনের রিমান্ড দিয়েছেন ঢাকার একটি আদালত। একইসঙ্গে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন ওরফে রনি ওরফে রাতুলের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত।

জানা গেছে, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে লুমাকে গতকাল বুধবার গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার মহানগর হাকিম কাজী কামরুল ইসলাম লুমার ৩ দিনের রিমান্ড আদেশ দেন।

তবে লুমাকে নারী পুলিশের সামনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়াও, লুমার জামিন আবেদন নাকচ করে দেন আদালত।

এর আগে তথ্যপ্রযুক্তি মামলায় গ্রেপ্তারকৃত কলেজ ছাত্রী লুমাকে আদালতে হাজির করে পাঁচদিনের রিমান্ড চান ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ক্রাইম ইউনিটের পরিদর্শক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।
------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন গোলাম সারওয়ার
------------------------------------------------------------------

রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় পুলিশ গতকাল (১৫ আগস্ট) ভোর রাতে সিরাজগঞ্জ থেকে লুমাকে গ্রেপ্তার করে।

ডিএমপির সাইবার ক্রাইম মনিটরিং টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মোহাম্মদ নাজমুল ইসলাম জানান, লুমার গ্রেপ্তারের সঙ্গে কোটা সংস্কার আন্দোলনের কোনো সংযোগ নেই। কিন্তু, শিক্ষার্থীদের আন্দোরনের সময় সংঘাত উসকে দেওয়ার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শেষ হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত রাজধানী ঢাকায় ৫১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এতে ৯৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে, কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন ওরফে রনি ওরফে রাতুলের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম কাজী কামরুল ইসলাম শুনানি শেষে এই আদেশ দেন।

রমনা থানার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় সাখাওয়াতের পক্ষে তার আইনজীবী নূরউদ্দিন, জায়েদুর রহমান প্রমুখ জামিন আবেদনের শুনানি করেন।

এর আগে এই মামলায় দুই দফায় তিন দিনের রিমান্ড শেষে গত বুধবার সাখাওয়াতকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠায়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. সজীবুজ্জামান তাকে আদালতে হাজির করেন।

সাখাওয়াতকে গাজীপুর থেকে গ্রেপ্তারের পর গত ৮ আগস্ট কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় পুলিশের কর্তব্যকাজে বাধা দেয়ার অভিযোগের মামলায় একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। এরপর তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের মামলায় ১০ আগস্ট দুই দিন ও ১৩ আগস্ট এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

উল্লেখ্য, গেলো ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের দুটি বাসের রেষারেষিতে দুজন শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর তাদের সহপাঠীরা এর প্রতিবাদ এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করলে তা পর্যায়ক্রমে সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন  :

এসজে