ঢাকায় বসবে কুরবানির ২১টি পশুর হাট

প্রকাশ | ০৭ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৪১ | আপডেট: ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৫৮

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২২ বা ২৩ আগস্ট ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।  পশু বেচাকেনা নিয়ে ইতিমধ্যেই অনেকের মঝে উৎসাহ ও উদ্দিপনা শুরু হয়ে গেছে। কুরবানি ঈদকে ঘিরে এবার ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে মোট ২১টি স্থানে পশুর হাট বসবে। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরে গাবতলী স্থায়ী হাটসহ ৮টি ও ঢাকার দক্ষিণে ১৩টি অস্থায়ী হাট বসবে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এসব হাটে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে গরু, ছাগল, মহিষ, উট এসে ভিড় জমাবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের জনসংযোগের কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায় ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মমর্তা এ এস এম মামুন  আরটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৮ টি হাটের মধ্যে রয়েছে- উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টরের ২ নম্বর ব্রিজের পশ্চিমে গোলচত্বর পর্যন্ত সড়কের উভয় পাশের ফাঁকা জায়গা, মিরপুর ডিওএইচ এর উত্তর পাশের সেতু প্রোপার্টি সংলগ্ন খালি জায়গায়, মিরপুর সেকশন-২ (ইস্টার্ন হাউজিং) এর খালি জায়গা, মোহাম্মদপুর বুদ্ধিজীবী সড়ক সংলগ্ন (বছিলা) পুলিশ লাইনের খালি জায়গা, আশিয়ান সিটি হাউজিং, খিলক্ষেত বনরূপা আবাসিক প্রকল্পের খালি জায়গা, ভাটারা (সাঈদ নগর) হাট এবং গাবতলী স্থায়ী পশুরহাট।

অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৩টি স্থানে অস্থায়ী পশুর হাট বসানো হবে। এসব হাটের মধ্যে রয়েছে- মেরাদিয়া বাজার সংলগ্ন খালি জায়গা, উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেট বাজারের মৈত্রী সংঘের মাঠ সংলগ্ন খালি জয়গা, ব্রাদার্স ইউনিয়নের বালুর মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, কমলাপুর স্টেশনের আশপাশের খালি জায়গা, ঝিগাতলার হাজারীবাগ মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, কামরাঙ্গীরচর ইসলাম চেয়ারম্যানের বাড়ির মোড় থেকে দক্ষিণ দিকে বুড়িগঙ্গা নদীর বাঁধ সংলগ্ন খালি জায়গা, আরমানিটোলা খেলার মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, ধূপখোলা ইউ অ্যান্ড ক্লাব সংলগ্ন খালি জায়গা, পোস্তগোলা শ্মশানঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা, দনিয়া কলেজ মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, শ্যামপুর খালি জায়গা সংলগ্ন খালি জায়গা, সাদেক হোসেন খোকা মাঠের পাশে ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল সংলগ্ন খালি জায়গা।

তবে ২০টি অস্থায়ী হাটের মধ্যে ৭টির ইজারা এখনো সম্পন্ন হয়নি।

সেগুলো হলো- উত্তরখান ও দক্ষিণের ব্রাদার্স ইউনিয়নের বালুর মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, কমলাপুর স্টেশনের আশপাশের খালি জায়গা, আরমানিটোলা খেলার মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, ধূপখোলা ইউ অ্যান্ড ক্লাব সংলগ্ন খালি জায়গা, সাদেক হোসেন খোকা মাঠের পাশে ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল সংলগ্ন খালি জায়গা

গাবতলী স্থায়ী হাট বাদে বাকি সবগুলো ঈদের জন্য অস্থায়ী ভিত্তিতে বসানো হয়। এসব হাটের জন্য মূল্য নির্ধারণ করে মাসখানেক আগেই পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে দরপত্র আহ্বান করা হয়।

উত্তর সিটি করপোরেশনের ৭টি পশুর হাটের সরকারি ইজারামূল্য ধরা হয়েছে ১২ কোটি ৮৫ লাখ ৫৩ হাজার ৭৭ টাকা। আর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৩টি অস্থায়ী হাটের ইজারামূল্য ধরা হয়েছে ১২ কোটি ১৮ লাখ ৩৭ হাজার ৬৭৫ টাকা।

এমসি/ এমকে