• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

পুলিশের গাড়িতে লাইসেন্স রাখার নির্দেশ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০২ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৪ | আপডেট : ০২ আগস্ট ২০১৮, ১৬:১৮
সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের পর নয় দফা দাবিতে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা। এর অংশ হিসেবে রাস্তায় গাড়ির লাইসেন্স ও ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করছে তারা। এ সময় পুলিশের কয়েকটি গাড়িতে লাইসেন্স পাওয়া যায়নি শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, পুলিশের ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর কোনও সুযোগ নেই। সব পুলিশেরই ড্রাইভিং লাইসেন্স আছে। পুলিশের বেশিরভাগ লাইসেন্স ডিএমপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আছে। তাদের লাইসেন্স সাথে না থাকার কারণে দেখাতে পারেনি। আমরা সব লাইসেন্স ফিরিয়ে দেবো। পুলিশের গাড়িতে লাইসেন্সসহ সংশ্লিষ্ট কাগজ রাখতে চালকদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

গেল কয়েক দিন ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা পুলিশ, সাংবাদিক ও ভিআইপিসহ সব শ্রেণির মানুষের গাড়ির লাইসেন্স ও কাগজপত্র দেখছেন।

এসময় লাইসেন্স না থাকা পুলিশ সদস্যের অনেক ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। গতকাল বুধবার লাইসেন্স না থাকায় উত্তরায় একটি পুলিশের গাড়ি ভাংচুর করে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া পুলিশের গাড়িতে মার্কার পেন দিয়ে নানান বক্তব্য লিখতে দেখা যায়।

পঞ্চম দিনের মতো আজ বৃহস্পতিবারও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় যানবাহনের লাইসেন্স চেক করা ছাড়াও নয় দফা দাবি আদায়ে নানান স্লোগান দেন।

সকাল থেকে শিক্ষার্থীদের রাজধানীর ফার্মগেট, গুলশান ২ নাম্বার, সায়েন্স ল্যাবরেটরি, রামপুরা, বাড্ডা, ধানমন্ডি, মিরপুর-১০ গোলচত্বর, উত্তরা জসীম উদ্দীন রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় জড়ো হতে দেখা যায়।

গেল রোববার রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের দুই বাসের রেষারেষিতে ঝরে যায় দুই শিক্ষার্থীর প্রাণ। তারা হলেন শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী দিয়া আক্তার মীম ও আব্দুল করিম। এরপর তার সহপাঠীরা আন্দোলনে নামেন। ধীরে ধীরে এ আন্দোলন পুরো রাজধানীসহ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

এমসি /আরসি / জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়