• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

‘মাহমুদুর রহমানকে হামলার বিষয়টি দেখবেন প্রধান বিচারপতি’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৪ জুলাই ২০১৮, ১৫:১৯ | আপডেট : ২৪ জুলাই ২০১৮, ১৫:২৮
সদ্য বিলুপ্ত হওয়া আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের উপর কুষ্টিয়ায় আদালত চত্বরে হামলার বিষয়টি দেখার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

মঙ্গলবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক হামলার ঘটনাটি আদালতের নজরে আনলে প্রধান বিচারপতি তাদের এ আশ্বাস দেন।

গত রোববার (২২ জুলাই) মানহানির একটি মামলায় জামিন নিতে গিয়ে কুষ্টিয়ার আদালত প্রাঙ্গণে হামলার শিকার হন মাহমুদুর রহমান। বিষয়টি আদালতের নজরে এনে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন ও সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। এসময় প্রধান বিচারপতি বিষয়টি দেখবেন বলে তাদের আশ্বস্ত করেন। পরে এ ঘটনায় প্রকাশিত বেশ কয়েকটি জাতীয় পত্রিকার প্রতিবেদন তারা আদালতে উপস্থাপন করেন।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : জেলা প্রশাসকদের ২৩ দফা নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
--------------------------------------------------------

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন- ‘আমরা দেশের সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবী সমিতি। আমরা এটা পর্যবেক্ষণ করেছি এবং অপেক্ষা করছি; দেখি আদালত কি ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। কিন্তু আমরা লক্ষ্য করলাম আজ পর্যন্ত এ ঘটনার বিষয়ে কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এজন্য সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগে হাজির হয়েছি পত্রিকা নিয়ে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। প্রধান বিচারপতিকে বলেছি, এই আদালত সংবিধানের অভিভাবক, সব আদালতের অভিভাবক, জনগণের অভিভাবক। মানুষ আদালতে যায় এবং সেই আদালত যদি জনগণের নিরাপত্তা দিতে না পারে, তাহলে আদালতের প্রতি মানুষের আস্থা থাকবে না।

প্রধান বিচারপতিসহ আপিল বিভাগ আমাদের বক্তব্য শুনেছেন। শুনে তারা বলেছেন বিষয়টি তারা দেখবেন।

আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, এটা কোর্ট আঙিনার ঘটনা। কোর্ট আঙিনায় প্রত্যেক বিচারপ্রার্থীর নিরাপত্তা দেয়া প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব। এ ঘটনায় ওই কোর্ট থেকে মামলা করবে। প্রধান বিচারপতির নির্দেশে আমরা আশা করি ওখানকার কোর্ট অফিসার মামলা করবেন। তারা মামলা করলে সেটা সিরিয়াস মামলা হবে। একারণে আমরা ব্যক্তিগতভাবে মামলা করিনি। আদালতের অভিভাবক হিসেবে প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব সকল আদালতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা। এজন্যই আমরা প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।’

আরও পড়ুন  : 

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়