• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৫ জুলাই ২০১৮, ১৭:০৮ | আপডেট : ০৫ জুলাই ২০১৮, ১৭:১৪
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। শ্রম আদালতে সাংবাদিক খায়রুল আলম ও সেবিকা রানীর করা মামলার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ঢাকার প্রথম শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান ড. শাজাহান নির্বাচন স্থগিতের আদেশ দিয়েছেন।

ঢাকার প্রথম শ্রম আদালতের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আবু হানিফ মামলার বিষয়টি আরটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মামলায় বাদীপক্ষ অভিযোগ করেন ভোটার তালিকা থেকে ২৬ জনকে বাদ দেয়া হয়েছে যা শ্রম আইনের লঙ্ঘন। অপরদিকে ২০০ জনকে সদস্যপদ দেয়া থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে তারা একটি অভিযোগ করেছেন যা এখনও মীমাংসা হয়নি। এ কারণেই তারা নির্বাচন স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছেন।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন :কারও ষড়যন্ত্রে কাজ হয়নি, পদ্মা সেতু এখন দৃশ্যমান: প্রধানমন্ত্রী
--------------------------------------------------------

আদালত মামলা স্থগিত করে ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

মামলায় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষে বাদী হয়েছেন খায়রুল আলম ও সেবিকা রানী। বিবাদী করা হয়েছে বিএফইউজে নির্বাচন কমিশনার আলমগীর হোসেন, নির্বাচন কমিশনের সদস্য অশোক কুমার সিং, সাহেদ চৌধুরী, মুজিব হোসেন, হাসান আরেফিন ও শ্রম আদালতের ডিরেক্টরকে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

এ বিষয়ে সেবিকা রানী বলেন, বিএফইউজে নির্বাচনের সর্বশেষ ভোটার তালিকায় গঠনতন্ত্রের ১২ ধারার ৯ নম্বর বিধি লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে, অসাংগঠনিক পন্থায় ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) এর ২৬ জন সদস্যকে বাদ দেয়া হয়। একইসঙ্গে দুই শতাধিক সদস্যের ভোটাধিকার হরণ করা হয়। অধিকার হারানো সেই সহকর্মীদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে আমি শ্রম অধিদপ্তরে অভিযোগ দাখিল করি। শ্রম অধিদপ্তর বিষয়টি আমলে নিয়ে গঠনতন্ত্রের সংশ্লিষ্ট ধারা ও বিধি অনুসরণ করে অভিযোগ নিষ্পত্তিপূর্বক নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনার জন্য গত ০২ জুলাই বিএফইউজে’র নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যানের কাছে চিঠি পাঠান।  কিন্তু তারপরও সংশ্লিষ্টরা এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ না নেয়ায় আমি সহকর্মীদের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে আদালতের সম্পন্ন হই। আমাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মহামান্য আদালত আজ বৃহস্পতিবার এক আদেশে ৬ জুলাইর নির্বাচন (বিএফইউজে) পরবর্তী অনুমতি না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন :

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়