• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫

ঈদে খালি মহাখালী

সিয়াম সারোয়ার জামিল / সাজ্জাদ শোভন, মহাখালী বাস টার্মিনাল ঘুরে
|  ১৩ জুন ২০১৮, ১৯:৫৩ | আপডেট : ১৩ জুন ২০১৮, ২০:১৯
টার্মিনালে ঢুকতেই চোখে পড়লো যাত্রীদের ফাকা পরিবেশ। খুব বেশি ভিড় নেই। কেউ বসে আছেন অগ্রিম টিকিট কাটা বাসের অপেক্ষায় আর কেউবা আছেন টিকিট পাওয়ার অপেক্ষায়। যাত্রীরা আসছেন, টিকিট নিচ্ছেন, বাসের সিট পরিপূর্ণ হলেই বাস ছেড়ে দিচ্ছে।

বুধবার সকালে মহাখালী বাস টার্মিনালে পাওয়া গেল এমনই চিত্র। অন্য বাস টার্মিনালের তুলনায় অপেক্ষাকৃত অভিযোগ কম এখানে।

মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে প্রতিদিন উত্তরবঙ্গ, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর, জামালপুর ও সিলেট রুটের দূরপাল্লার বাস ছেড়ে যায়।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : যাত্রীদের শুভেচ্ছা জানাতে কমলাপুরে ছুটে গেলেন রেলমন্ত্রী
--------------------------------------------------------

এর মধ্যে উত্তরবঙ্গ ও সিলেট রুট ছাড়া বাকি সব রুটের টিকিট তাৎক্ষণিকভাবেই কাউন্টারে পাওয়া যাচ্ছে। নেই বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ। তবে টার্মিনালের নোংরা পরিবেশ অভিযোগ বিস্তর।

টাঙ্গাইলের যাত্রী রফিকুল ইসলাম আরটিভি অনলাইনকে জানান, টাঙ্গাইলের নিরালা পরিবহন ও বিনিময় পরিবহন সাধারণ ভাড়ার চেয়ে ২০ টাকা নিচ্ছে।

এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জের যাত্রী পুলক আশরাফ বলেন, একতা পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। জনপ্রতি দুইশত টাকা বেশি হারে আদায় করছে।

বাস ছাড়ার যে পূর্বনির্ধারিত সময় ছিল, সে সময়েও বাস ছাড়ছে না। কখন ছাড়বে তার কোনো সঠিক সময় জানাচ্ছে না।

তবে একতা পরিহনের কাউন্টারে থাকা শোয়েব জানানম, ভাড়া যা, তা টিকিটে উল্লেখ করা আছে। নির্ধারিত ভাড়ার বাইরে অতিরিক্ত কিছু নেয়া হয়না।

মহাখালী কাউন্টারে যাত্রীদের দুর্ভোগ নিয়ে কথা হয় দায়িত্বরত ইন্সপেক্টর এনামুল হকের সঙ্গে।

তিনি আরটিভি অনলাইনকে বলেন, আমরা অভিযোগ পেলে তৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করি। আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন। তিনি মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে যে কোনো অভিযোগের সুরাহা করেন।

আরও পড়ুন : 

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়