• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

আয়কর পরিচয়পত্র পেলেন প্রধানমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৩ নভেম্বর ২০১৭, ১৭:৩৩ | আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০১৭, ১৭:৪৬
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ‘ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড’ হস্তান্তর করেছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।

আজ সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠকের শুরুতে এনবিআর চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রীর হাতে এ কার্ড তুলে দেন। এসময় চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রীকে এনবিআরের নিয়মিত করদাতা হিসেবে অভিনন্দন জানান।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে  নজিবুর রহমান বলেন, সারাদেশে একটি রাজস্ব-বান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠার চলমান প্রয়াসের ধারাবাহিকতায় রাজস্ব বোর্ড বিভিন্ন উদ্ভাবনীমূলক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এসবের মধ্যে রয়েছে আয়কর মেলা, আয়কর দিবস, আয়কর সপ্তাহ, আয়কর ক্যাম্প, রাজস্ব হালখাতা, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে করসেবা পৌঁছানো, রাজস্ব সংলাপ, কর শিক্ষণ ফোরাম, সোস্যাল মিডিয়া সংলাপ, ফেসবুক পেইজ, ফিডব্যাক মেইল ইত্যাদি।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, প্রতিবছরই বিভিন্ন উদ্ভাবনী ধারণা গ্রহণ করা হচ্ছে। এবাবের উদ্ভাবনটি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে উজ্জীবিত হয়ে এনবিআর জাতীয় পরিচয়পত্রের ডাটাবেজ ব্যবহার করে করদাতাদের জন্য একটি ‘ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড’ প্রচলন করেছে। এবার সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় করদাতারা এ কার্ডে ব্যাপক সাড়া দিয়েছেন। মেলায় ৯১ হাজার ২৫২ জন করদাতা এ কার্ড গ্রহণ করেছেন। প্রতিটি কর অঞ্চল থেকে এ কার্ড প্রদান করা হচ্ছে।পর্যায়ক্রমে সারাদেশের করদাতারা এ কার্ড পাবেন।

তিনি বলেন, এ কার্ড নেয়ার মাধ্যমে করদাতারা উন্নয়নে তাদের অংশীদারিত্বের পরিচয় দিয়েছেন। মেলায় বেশ কয়েকজন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, সংসদ সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মুখ্য সচিব, মুখ্য সমন্বয়ক, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কার্ড গ্রহণ করেন।

রাজস্ব বোর্ডের পক্ষ থেকে এসময় জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮২-৮৩ কর বর্ষ থেকে নিয়মিতভাবে আয়কর দিয়ে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। সেজন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড একটি স্বীকৃতিফলক তৈরি করে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছে। এ কার্ড পেয়ে প্রধানমন্ত্রী এনবিআরের প্রশংসা করেন।

এনবিআর সূত্র জানায়, ২০১৫-১৬ করবর্ষে রিটার্ন দাখিলের সময় শেখ হাসিনা কৃষি, সম্মানী ও সম্মানী ভাতা এবং বাড়ি ভাড়া ইত্যাদি খাতের আয় থেকে সরকারি কোষাগারে ১৪ লাখ টাকা আয়কর দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৪০ লাখ টাকা আয়ের ওপর ১৪ লাখ টাকার বেশি কর দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার ‘কর অঞ্চল-৬’ এ নিয়মিত রিটার্ন দাখিল করেন। 

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়