• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত মিয়ানমার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ২২:১৩ | আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০১৭, ১১:১৯
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য ছেড়ে পালিয়ে এসে বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে মিয়ানমার। এছাড়া কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নেরও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দেশটি।

এ ব্যাপারে মিয়ানমার ও বাংলাদেশ ৩০ নভেম্বরের মধ্যে একটি জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করবে। 

মঙ্গলবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোতে দু’দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

জানা গেছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন স্থানীয় সময় আগামীকাল বুধবার সকাল ১০টায়  মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সুচির সঙ্গে বৈঠক করবেন।

দু’দেশের মধ্যেকার আজকের বৈঠকের শিরোনাম ছিল ‘মিয়ানমার-বাংলাদেশ সহযোগিতা : নিরাপত্তা ও আইন প্রয়োগে মন্ত্রিপর্যায়ে বৈঠক’। আলোচনায় নিরাপত্তা ও আইন প্রয়োগ ইস্যুসহ বাংলাদেশ এবং মিয়ানমারের মধ্যে সহযোগিতার বিষয় স্থান পায়।

সভায় উভয়পক্ষ দু’টি সমঝোতা স্মারকও (এমওইউ) স্বাক্ষর করে বলে বাংলাদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফ মাহমুদ অপুর পাঠানো বার্তায় বলা হয়।

এর আগে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের পদস্থ কর্মকর্তারা সচিব পর্যায়ে এক সভায় মিলিত হন। এতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন বাংলাদেশ পক্ষের নেতৃত্ব দেন। মিয়ানমারের সচিব ইউন টিন মায়েন্ট তার দেশের ১৬ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন।

রোহিঙ্গা সংকটের মধ্যে আলোচনার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের নেতৃত্বে ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সোমবার মিয়ানমার পৌঁছায়। তাঁর সঙ্গে আছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দুই সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক, কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ সংস্থার মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এ সফরকালে রোহিঙ্গা সংকটসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে তারা আলোচনা করবেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গারা নিজেরাই চলে যাচ্ছে বলে দাবি মিয়ানমার সরকারের। তবে চলে যাওয়া ঠেকানোর অনুরোধ করেছেন আসাদুজ্জামান খান কামাল।

মন্ত্রী আরও জানান, রাখাইনে যেতে চাইলেও ইতিবাচক সাড়া পাননি। সীমান্তে মাইন পাতার ব্যাপারে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মিকে দোষারোপ করেছে মিয়ানমার। তবে মাইন সরানোর উদ্যোগ নেয়ার কথা জানিয়েছে দেশটি।

সূত্র- বাসস

 

এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়