• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

বৃষ্টি উপেক্ষা করে শহিদ মিনারে শোকের মিছিল

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ৩১ আগস্ট ২০১৭, ১৩:০৬ | আপডেট : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১:৩০
বৃষ্টি উপেক্ষা করে শিল্পী আব্দুল জব্বারকে শ্রদ্ধা জানাতে সকাল ১০টার পর পর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে নামে শোকের মিছিল।

মুষলধারে বৃষ্টি সত্ত্বেও শহিদ মিনারে ছিল না তিল ধারণের ঠাঁই। এসেছেন নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ। তারা শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানালেন প্রয়াত সংগীতশিল্পী আব্দুল জব্বারকে।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আব্দুল জব্বারের মরদেহ শহিদ মিনারে পৌঁছায়। এর পরপরই প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল মোহাম্মদ আবু নাসের চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান। এ শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধায় জানায় আরটিভি পরিবারও।

ঢাকা জেলার ম্যাজিস্ট্রেট তাজুয়া আকরাম ইবনে সাজ্জাদের নেতৃত্বে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় প্রয়াত এ কণ্ঠসৈনিককে।

আরো শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী খালিদ হোসেন, শাহীন সামাদ ও এসডি রুবেলসহ অনেকে।

শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ মুহূর্তে আরেকজন আব্দুল জব্বার খুঁজে পাওয়া যাবে না। তিনি মারা গেছেন, কিন্তু তার সংগীতের মৃত্যু নেই। বিখ্যাত গানগুলো আগামী দিনেও আন্দোলিত করবে, উজ্জীবিত করবে।’

সকালে বাংলাদেশ বেতার প্রাঙ্গণে আব্দুল জব্বারের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। বাদ যোহর দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে। এরপর মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠসৈনিক আব্দুল জব্বার বুধবার সকাল ৯টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মে মাসে হাসপাতালে ভর্তি হন এ শিল্পী। ওই সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান জানান, আব্দুল জব্বার ক্রনিক কিডনিজ ডিজিস (সিকেডি) স্পেস ফোরে ভুগছেন। এছাড়া তার লিভারে সমস্যা ছিল।

‘জয় বাংলা বাংলার জয়’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম, ‘ওরে নীল দরিয়া’, ‘তুমি কি দেখেছো কভু জীবনের পরাজয়’সহ অসংখ্য গানের গায়ক আব্দুল জব্বার। তার গাওয়া ‘তুমি কি দেখেছ কভু জীবনের পরাজয’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ ও ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ গান তিনটি ২০০৬ সালের মার্চ মাসে বিবিসি বাংলার শ্রোতাদের বিচারে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ২০টি গানের তালিকায় স্থান পায়। তিনি বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত দুটি সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক (১৯৮০) ও স্বাধীনতা পুরস্কারে (১৯৯৬) ভূষিত হন।

আব্দুল জব্বার ১৯৩৮ সালের ৭ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়