close
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০১৭ | ১০ শ্রাবণ ১৪২৪

আনিসুল হক-সাঈদ খোকনকে লাল কার্ড!

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৫ জুলাই ২০১৭, ২২:২৮ | আপডেট : ১৫ জুলাই ২০১৭, ২২:৩১
মশানিধনে ব্যর্থ হওয়ায় ঢাকার দু’সিটি করপোরেশন মেয়রকে লাল কার্ড দেখিয়েছে ঢাকাবাসী।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ব্যতিক্রমী এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে লেখক-শিল্পী-ছাত্র-শিক্ষক-সাংবাদিক ও নাগরিকদের ব্যানারে।

এসময় নাগরিক সংহতির সাধারণ সম্পাদক শরিফুজ্জামান শরিফ বলেন, চিকুনগুনিয়ার ভুক্তভোগীদের স্বাভাবিক জীবন এখন বিপর্যস্ত। অথচ এ রোগ ছড়ানো মশা দমন করা যাদের দায়িত্ব ছিল তারা সেটা পালন করেননি।

তিনি বলেন, আনিসুল হক ঢাকা উত্তরের মেয়র হয়ে বলেছিলেন এবার থেকে ‘সমাধান যাত্রা’ শুরু। কিন্তু শুক্রবার তিনি নাগরিকদের ওপরই আক্রোশ ঝেড়েছেন, আপত্তিকর মন্তব্যও করেছেন। দক্ষিণের মেয়রও দোষ চাপিয়েছেন নাগরিকের ওপর।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আগামী ৩ দিনের মধ্যে চিকুনগুনিয়া মশা তাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা জানি না কোন পথ বা পদ্ধতিতে ৩ দিনের মধ্যে চিকুনগুনিয়া ছড়ানো মশা তাড়ানো হবে।

শরিফুজ্জামান শরিফ বলেন, আমরা দেখছি সরকারের মন্ত্রী, সিটি কর্পোরেশন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কারো বক্তব্যের সঙ্গে কারো বক্তব্যের মিল নেই। আপনারা মশা নিয়ে মশকরা করেন। আবার মতিঝিল, রাজারবাগের রাস্তায় নৌকা চললে নির্লজ্জের মতো বলেন- জলাবদ্ধতা নেই জলজট আছে।

লেখক ও প্রকাশক রবিন আহসান বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলছেন চিকুনগুনিয়ার প্রাদুর্ভাবের জন্য সিটি করপোরেশন দায়ী। এদিকে সিটি করপোরেশন একরকম জনগণের ঘাড়েই দায় চাপাতে চাইছে।

মেয়রদের প্রতি প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, এই শহরে বৃষ্টি হলে রাজারবাগে, মতিঝিলে নৌকা চলে। আপনারা কি লজ্জিত নন, মাননীয় মেয়রগণ?

যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় নেতা খান আসাদুজ্জামান মাসুম বলেন, শুক্রবারের সংবাদ সম্মেলনে আনিসুল হকের বক্তব্যে তার দেউলিয়াপনাই প্রকাশ পেয়েছে। তারা জনগণের মেয়র হতে পারেননি। নির্বাচনী প্রচারণার সময় অনেক বুলিই ঝেড়েছেন। কেবল বুলি দিয়ে নয়, জনগণকে আশ্বস্ত করতে হবে কাজ দিয়ে।

কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিপিবি নেতা ফেরদৌস আহমেদ উজ্জ্বল, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির শহিদুল ইসলাম সবুজ, গণসংহতি আন্দোলনের বাচ্চু ভূঁইয়া, সমাজকর্মী জাকিয়া শিশির, ইফতেখার আহমেদ বাবু, কলামিস্ট লীনা পারভীন, ব্লগার ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট আরিফ জেবতিক।

কর্মসূচিতে ছাত্র-শিক্ষক-সাংবাদিকসহ বিভিন্ন স্তরের নাগরিকরা উপস্থিত ছিলেন।

কে/এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়