close
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

নিরাপত্তার কারণে আমাকে জনবিচ্ছিন্ন করবেন না : এসএসএফ এর প্রতি প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও)

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৫ জুলাই ২০১৭, ১৪:৩৩ | আপডেট : ১৫ জুলাই ২০১৭, ১৬:১৮
‘আমার নিরাপত্তার জন্য আপনারা কাজ করেন, নিরাপত্তা দেন ভালো কথা কিন্তু খেয়াল রাখবেন আমি যেন এ কারণে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে না যাই। কারণ পরিবার হারানোর পর ওরাই আমার আপনজন।’

শনিবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীর (এসএসএফ) ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, বিভিন্ন সময় বারবার আমাদের ওপর আঘাত এসেছে কিন্তু আমাদের দমাতে পারেনি। আমার ওপর যখন গ্রেনেড হামলা হয়েছে। তখন আমার চারপাশে থাকা মানুষ মানবদেয়াল তৈরি করে আমাকে বাঁচিয়েছে। যখন বিরোধীদলে ছিলাম তখন তো নিরাপত্তা তেমন ছিল না, সাধারণ জনগণই আমাকে রক্ষা করেছে।

দেশ বিক্রির মুচলেকা দিয়ে আওয়ামী লীগ কখনো ক্ষমতায় আসে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণ আমাদের ২০০৯ সালে আবার ভোটের মাধ্যমে আমাদের ক্ষমতায় আনে। বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এ প্রশংসা যেন আমরা ধরে রাখতে পারি। জনগণের দেয়া ওয়াদা পূরণে কাজ করছি। তাই প্রতি বাজেটের আগে দেখি নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী আমরা কাজ হচ্ছে কিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভোটের মালিক জনগণ, ভোট দেবে তাদের ইচ্ছামতো। যাকে তারা চায় তাকেই তারা পাবে। কিন্তু আমার একটাই লক্ষ্য- দেশের উন্নয়ন করে যাওয়া। যেহেতু আমাদের উন্নয়ন একটি ধারায় যেতে পেরেছে তাই আমরা এত বড় বাজেট দিতে পেরেছি।

তিনি বলেন, সবার বেতন বৃদ্ধি করেছি। পৃথিবীর ইতিহাসে ১২২ ভাগ বেতন বৃদ্ধির ঘটনা কোনো দেশে হয়নি। প্রত্যেকের বেতন বৃদ্ধি করে আমরা উন্নয়ন বাজেটকে আরো বেশি করে দিয়েছি। যার ফলে আজকে সব শ্রেণি পেশার মানুষ তার সুফল পাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার বিরুদ্ধে, আমার পরিবারের বিরুদ্ধে, মন্ত্রিপরিষদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেছিল। আমি চ্যালেঞ্জ করেছিলাম, এখানে জনগণের সেবা করার জন্য এসেছি। দুর্নীতি করে নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য আসিনি। দুর্নীতি করে ভাগ্য গড়তে চাইলে অনেক আগেই করতে পারতাম। আমি রাষ্ট্রপতির মেয়ে ছিলাম, প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে ছিলাম। দুর্নীতি করতে চাইলে তখনই করতে পারতাম।

তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে একটি ষড়যন্ত্র ছিল। তারা তা প্রমাণ করতে পারেনি। কানাডার আদালত রায়ে বলেছেন এটা সম্পূর্ণ বানোয়াট ও মিথ্যা অভিযোগ। আমি বাংলাদেশের মানুষের মাথা নিচু করিনি। এটুকু অন্তত বলতে পারি, বরং মাথা উঁচু হয়েছে।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ একটি আন্তর্জাতিক সমস্যা সেটাতে কোনো সন্দেহ নেই। তারপরও সেটা নিয়ন্ত্রণ করতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। দেশে যেসব বিদেশি অতিথিরা আসেন, তাদের নিরাপত্তার জন্য কাজ করে এসএসএফ। শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি যে বর্তমানে বাংলাদেশ সফর করছেন, তার জন্যও খুবই ভালো আয়োজন করা হয়েছে। এ কাজে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

 

 

সি/

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়