• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

‘২০২৪ সালের পর বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থাকবে না’

অনলাইন ডেস্ক
|  ১৬ মার্চ ২০১৭, ১৯:২৭
২০২৪ সালে স্বল্পোন্নত দেশ-এলডিসি’র তালিকা থেকে বের হবে বাংলাদেশ। এজন্য যেসব দরকারি লক্ষ্যগুলো প্রাথমিকভাবে অর্জন করতে হবে, তা ২০১৮ সালের মধ্যেই পারবে বাংলাদেশ। বললেন বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফল পলিসি ডায়ালগ-সিপিডি’র সম্মানীয় ফেলো মোস্তাফিজুর রহমান।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর লেকশোর হোটেলে সিপিডি আয়োজিত ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নত দেশের পথে বাংলাদেশ এবং চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক আলোচনায় উপস্থাপিত মূল প্রবন্ধে তিনি এসব কথা বলেন। 

সিপিডি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ রেহমান সোবহানের সভাপতিত্বে ও সিপিডি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুনের সঞ্চালনায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. ওয়াহিদুদ্দিন মাহমুদ, জেমকন গ্রুপের পরিচালক কাজী আনিস আহমেদ, এফবিসিসিআই’র সহ-সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

মূল প্রবন্ধে বলা হয়, আমরা আমাদের গবেষণায় দেখেছি, ২০১৮ সালে জাতিসংঘের যে পর্যালোচনাটি হবে, সেখানে বাংলাদেশ বেশ শক্তিশালী একটি অবস্থানে থাকবে। সব মিলিয়ে ২০২৪ সালের দিকে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হয়ে আসতে পারবে বলে বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে। 

এতে আরো বলা হয়, এলডিসি থেকে বের হলেও পরের ৩ বছর অর্থাৎ ২০২৭ সাল পর্যন্ত এ তালিকার দেশ হিসেবে প্রাপ্ত সুবিধাগুলো পাবে বাংলাদেশে। ২০২৭ সালের পর বিশ্ব বাণিজ্যে শক্ত প্রতিযোগিতার মুখে পড়তে হবে বাংলাদেশকে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, স্বাধীনতার ৫ দশক পর বাংলাদেশ কোনোভাবেই গরিব দেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করতে পারে না। এলডিসি থেকে বাংলাদেশের বের হয়ে আসা হবে আগের যেকোনো দেশের চেয়ে টেকসই, মসৃণ ও সফলতম ঘটনা। 

কে/এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়